শনিবার   ০৪ জুলাই ২০২০   আষাঢ় ১৯ ১৪২৭   ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪১

গো বিডি ২৪

ভুলেও গরম পানিতে গোসল নয়!

প্রকাশিত: ১১ ডিসেম্বর ২০১৯  

একথা মানেন তো সারা দিনে আমরা যা যা করি, তার সব কিছুর সঙ্গে শরীরের ভাল-মন্দের সরাসরি যোগ থাকে। সেই কারণেই তো সুস্থ থাকতে ছোট থেকে ছোট বিষয়ের উপর নজর রাখাটা একান্ত প্রয়োজন, না হলেই কিন্তু বিপদ!


আপনারা অনেকেই তো ঠান্ডার সময় ছাড়াও গরম পানি দিয়ে গোসল করেন। কিন্তু এমন অভ্যাস শরীরের জন্য ভাল কিনা সে সম্পর্কে খোঁজ রাখেন? পরিসংখ্যান বলছে প্রায় ৮০ শতাংশই গরম পানি বা ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করার উপকারিতা বা আপকারিতার কথা না জেনে কেবল অন্ধের মতো কাজটি করে থাকেন। তাই তো বলি অনেক হয়েছে, আর নয়। এবার থেকে গরম পানি দিয়ে গোসল করা একেবারে বন্ধ করে দিন।


১: ছেলেরা দীর্ঘ সময় গরম পানি দিয়ে গোসল করলে বাচ্চা হওয়ার ক্ষেত্রে নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। কারণ এমন অভ্যাসের কারণে ফার্টিলিটি কমে যায়। তাই তো ছেলেদের সব সময় ঠান্ডা পানি দিয়ে গোসল করা উচিত। এমনটা করলে স্পার্ম কাউন্ট বৃদ্ধি পায়। ফলে সন্তান নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও অসুবিধাই হয় না।
২: একাধিক কেস স্ট্যাডি করে দেখা গেছে প্রচন্ড ঠান্ডায় গরম পানি দিয়ে গোসল করলে হঠাৎ করে হার্টের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। শুধু তাই নয়, এমনটা করলে হার্ট অ্যাটাকের সম্ভবনাও বাড়ে। তাই যাদের হার্টের সমস্যা রয়েছে তারা ভুলেও গরম পানি দিয়ে গোসল করার কথা ভাববেন না।


৩: গরম পানি দিয়ে গোসল করলে ত্বকের আদ্রতা হারিয়ে যায়। ফলে স্কিন রুক্ষ হতে শুরু করে। ফলে ধীরে ধীরে ত্বকের সুন্দর্য্য হ্রাস পেতে থাকে। আপনি কি চান এমনটা অপনার ত্বকের সঙ্গেও হোক? তাহলে আজ থেকেই গরম জলে স্নান করে একেবারে বন্ধ করে দিন।


৪: সম্প্রতি প্রকাশিত এক গবেষণা পত্র অনুসারে ঠান্ডা পানিতে গোসল করলে আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতি ঘটে। ফলে নানাবিধ সংক্রমণে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা একেবারে হ্রাস পায়। 


৫: গরম পানিতে গোসল করার সময় রক্ত চাপে পরিবর্তন হতে শুরু করে। ফলে এই সময় সারা শরীরে রক্তের সরবরাহ ঠিক রাখার পাশাপাশি ব্লাড প্রেসার স্বাভাবিক রাখতে হার্টকে বেশি বেশি করে কাজ করতে হয়। ফলে যাদের হার্টের রোগ রয়েছে তাদের মারাত্মক কোনও ক্ষতি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়।


৬: অনেকেরই গরম পানি দিয়ে গোসল করার পর মাথা ঘোরা এবং গা গোলানোর মতো অসুবিধাগুলি হয়ে থাকে। কখনও ভেবে দেখেছেন কেন এমনটা হয়? গবেষণা বলছে গরম পানি শরীরে পরা মাত্র রক্তচাপে হেরফের হতে শুরু করে। ফলে শরীরের কর্মক্ষমতা কমে গিয়ে এই সব লক্ষণগুলি দেখা দিতে থাকে।


৭: গরম পানি দিয়ে গোসল করার কারণে অনেকেরই হঠাৎ করে বমি হওয়া এবং মাথা ঘুরে যাওয়ার মতো সমস্যা দেখা দেয়। এমনটা হওয়ার পেছনে কারণটা সেই এক। রক্ত চাপের হেরফের। তাই তো সুস্থ শরীরকে যদি ব্যস্ত করতে না চান তাহলে গরম পানি দিয়ে গোসল করার অভ্যাস ছেড়ে দিন। প্রসঙ্গত, খাবার পর ভুলেও গরম পানি দিয়ে গোসল করবেন না। এমনটা করলে শরীরের ক্ষয় হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিতে পারে।  তথ্যসূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন

Loading...
এই বিভাগের আরো খবর