সোমবার   ২৬ অক্টোবর ২০২০   কার্তিক ১০ ১৪২৭  

গো বিডি ২৪

চাকরি ছাড়াও টাকা আয় করার সেরা ১০ উপায়

প্রকাশিত: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

চাকরি নেই বলে হতাশ? বারবার পরীক্ষায় ব্যর্থ হয়ে হাল ছেড়ে দিচ্ছেন? নাকি কারও অধীনে, নিজের মতের বাইরে গিয়ে দশটা-পাঁচটার ডিউটিতে চরম অনিহা? কিন্তু হাতের কাছে আয় করার দারুণ সব উপায় থাকলে খামোখা হাল ছাড়বেন কেন? জেনে নিন, চাকরি ছাড়াও আরও কী কী উপায়ে আপনার পকেটকে স্বাস্থ্যবান করে তুলতে পারেন।

 

বাড়ি কেনা-বেচা: চাকরি নেই এ দিকে টাকারও দরকার? চিন্তা কী? বাড়ি বা জমির কেনা বেচা কিন্তু এই মুহূর্তে যথেষ্ট লাভদায়ক ব্যবসা। প্রথমে চেনাশোনার মধ্যে দিয়ে শুরু করুন। আস্তে আস্তে যোগাযোগের পরিধি বিস্তৃত হয়ে যাবে।

 

কেনেল: যদি আপনি পেট লাভার হন তাহলে এই ধরণের কাজ আপনার জন্য আদর্শ। বাড়িতে বা অন্য কোথাও 

 

সৃজনশীল দক্ষতা: সবার মধ্যেই কিছু না কিছু সৃজনশীল দিক থাকেই। কেউ ভালবাসেন কবিতা লিখতে, কেউ ভালবাসেন ঘর সাজাতে, আবার কেউ ভালবাসেন ফোটো তুলতে। নিজের ভিতরের সৃজনশীলতাকে অবহেলা না করে তাকে কাজে লাগান। কে বলতে পারে, হয়তো একজন ভাল ফোটোগ্রাফার বা কবি বা ইন্টেরিওর ডিজাইনার হয়েই জীবনে সাফল্য পেতে পারেন আপনি।

 

অনলাইনে চাকরি: বহু মানুষ আছেন যাঁরা তাঁদের জীবনে ব্যস্ততার কারণে নিজেদের গবেষণার প্রজেক্ট লেখার সময় পান না। অনেক সময় তাঁরা একজন অ্যাসিস্ট্যান্ট খোঁজেন। যদি ঘরে বসে টাকা রোজগার করতে চান তাহলে এই ধরনের বিভিন্ন সংস্থার সাইটে নিজের অ্যাকাউন্ট খুলুন আর টাকা আয় করুন ঘরে বসেই।

 

অনলাইন সার্ভে: নানা রকম পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য নানান সার্ভে পেপার অনলাইনে দেওয়া থাকে। সেখানে প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য টাকা দেওয়া হবে আপনাকে।

 

মেরামত করুন: টিভি, ফ্রিজ, মোবাইল, মিক্সি, মাইক্রোওয়েভ থেকে শুরু করে যে কোনও মেশিন মেরামত করা শিখে নিন। এই ধরনের মেরামতির কাজও কিন্তু আজকের দিনে যথেষ্ট লাভদায়ক।

 

ফ্রিলান্সার লেখক: যদি আপনি লিখতে ভালবাসেন তাহলে ফ্রিলান্সিংয়ে লেখালিখি করাও আপনার জন্য লাভদায়ক। এতে কোনও দায়বদ্ধতা নেই। বরং আছে সৃষ্টির মজা।

 

হোম ডেলিভারি: রান্না করতে ভালবাসেন? সহজেই করতে পারেন হোম ডেলিভারির ব্যবসা। এতে লাভ তো হবেই, পাশাপাশি হরেক রকম রান্নায় মনও ভাল থাকবে আপনার।

 

গৃহ শিক্ষকতা: টাকা রোজগারের এর থেকে সহজ পদ্ধতি আর কি হতে পারে? নিজের যোগ্যতা বুঝে এবং পছন্দের বিষয় বেছে নিয়ে সহজেই গৃহ শিক্ষকতা করতে পারেন।

 

গবেষণায় সাহায্য: যদি আপনি বিজ্ঞানের ছাত্র হন তাহলে এই ধরনের কাজ আপনার জন্য আদর্শ। এতে এক দিকে যেমন জ্ঞানের পরিধিও বৃদ্ধি পাবে, তেমনই পকেটও ভরবে।

Loading...
এই বিভাগের আরো খবর